ছাত্রলীগের গেস্টরুম টর্চারের বলি ঢাবি ছাত্র হাফিজুর: ছাত্র গণমঞ্চ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্র হাফিজুর রহমান মোল্লা মৃত্যুর জন্য সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠনের দখলদারীত্ব, সন্ত্রাস ও গেস্টরুম নামক টর্চার সেলকে দায়ী করে অবিলম্বে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে ছাত্র গণমঞ্চ। রবিবার সংগঠনের সভাপতি সাঈদ বিলাস ও সাধারণ সম্পাদক নূর সুমন এক বিবৃতিতে এ দাবি জানান।

দফতর সম্পাদক অভিমন্য মহন্ত স্বাক্ষতির বিবৃতিতে ছাত্র গণমঞ্চের নেতারা বলেন, সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠনগুলো ক্যাম্পাসে, হলে দখলদারিত্ব-সন্ত্রাস-চাঁদাবাজি বজায় রাখতে ছাত্রদের সঙ্গে অমানবিক ব্যবহার করে। গেস্টরুম নামক টর্চার সেলের মতো মধ্যযুগীয় কায়দায় ছাত্রদের ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালায়। রাজনৈতিক মিটিং মিছিলে জোরপুর্বক অংশ গ্রহণে বাধ্য করে। তারই অংশ হিসেবে ঢাবিতে পড়তে আসা মার্কেটিং বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র হাফিজুর মোল্লাকে এই শীতের রাতে গভীর রাত অবধি বাইরে থাকতে বাধ্য করা হয়, তার থাকার জায়গা হয় হলের বারান্দা। গেস্টরুমে চলে মধ্যযুগীয় কায়দায় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন। ছাত্রলীগের চলমান এ সন্ত্রাস ও দখলদারিত্বের নির্মম স্বীকার হয়েছে হাফিজুর রহমান মোল্লা।

10007023_617180335031688_285103523_n

বিবৃতিতে এস.এম. হলের প্রাধ্যক্ষ গোলাম মোহাম্মদ ভূঁইয়ার বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানানো হয়। প্রশাসনের এই দায়িত্বজ্ঞানহীনতা ও নির্বিকার মনোভাবেই হাফিজুরদের মতো শিক্ষার্থীদের জীবনকে জিম্মি করে তোলা হয় বলেও বিবৃতিতে নেতারা উল্লেখ করেন।

বিবৃতিতে নেতারা সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠনের দখলদারিত্ব, প্রশাসনের দলীয়করণ, ফ্যাসিকরণের বিরুদ্ধে ক্যাম্পাসে, হলে গণতান্ত্রিক পরিবেশ তৈরি করতে গণতান্ত্রিক বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবিতে দেশপ্রেমিক ছাত্র সমাজকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য গত ২ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে এগারোটার দিকে হাফিজুর রহমান মোল্লা মানসিক ও শারীরিক নির্যাতনে বিপর্যস্ত হয়ে নিউমোনিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

সূত্র: প্রেস বিজ্ঞপ্তি

বিষয় বস্তু:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*

Latest from নির্বাচিত খবর

গো টু টপ