যবিপ্রবির ৫ শিক্ষার্থীর বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি ছাত্র গণমঞ্চের

দ্বন্দ্ব ডেস্ক।।

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়য়ের (যবিপ্রবি) নিরাপরাধ ৫ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে জারিকরা বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠন ছাত্র গণমঞ্চ। সোমবার (১৮ এপ্রিল) এক যুক্ত বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি সাঈদ বিলাস ও সাধারণ সম্পাদক নূর সুমন এ দাবি জানান।

10007023_617180335031688_285103523_n

বিবৃতিতে বহিষ্কারাদেশের বিরুদ্ধে চলমান ছাত্র আন্দোলনের প্রতি সমর্থন ও সংহতি প্রকাশ করা হয়। এতে বলা হয়,  সন্ত্রাসী বদিউজ্জামান বাদলসহ অন্যদের বাঁচাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপরাধ ৫ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের আদেশ দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বৈরাচারী উপাচার্য প্রফেসর ড.আব্দুস সাত্তার প্রভাবিত গঠিত তদন্ত কমিটি। এতে আজ ৫জন শিক্ষার্থীর শিক্ষা জীবন হুমকির মুখে ফেলে দিয়ে তাদের ভবিষ্যত নষ্ট করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিবৃতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও প্রসাশনের অগণতান্ত্রিক আচরণ, অন্যায় আর জুলুমের বিরুদ্ধে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যেতে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান ছাত্র গণমঞ্চের নেতারা।

উল্লেখ্য, গত বছর ৯ ডিসেম্বর ক্যাম্পাসে ছাত্রীকে উত্যক্ত করার ঘটনা নিয়ে সন্ত্রাসী বদিউজ্জামান বাদলের মদদে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও গ্রামবাসীদের সঙ্গে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। টানা তিন ঘণ্টার সংঘের্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৫ শিক্ষার্থী আহত হন। গত ৯ এপ্রিল এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটি জিন প্রকৌশলী ও জৈব প্রযুক্তি (জিইবিটি) বিভাগের স্নাতকোত্তর পর্বের একজন ছাত্রকে আজীবন, দুজনকে এক বছর করে ও অপর দুজনকে আবাসিক হল থেকে বহিষ্কারের সুপারিশ করেছে। এ ছাড়া একজন নিরাপত্তাকর্মীকেও চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়ার সুপারিশও করা হয়েছে। এর প্রতিবাদেই ১০ এপ্রিল থেকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। সর্বশেষ রবিবার (১৭ এপ্রিল) শিক্ষার্থীরা উপাচার্যকে কয়েক ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখেন এবং বিকালে স্থানীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*

Latest from নির্বাচিত খবর

গো টু টপ